প্রচণ্ড শ্বাসকষ্টে ঘরোয়া সমাধান…

শ্বাসকস্ট একটি ফুসফুসের সংক্রমণজনিত রোগ।সর্দি-কাশি হলে অনেকেরই শ্বাসকষ্ট দেখা দেয়।আর বর্তমান পরিস্থিতিতে করোনা রোগীদের তো শ্বাসকস্ট নিত্যদিনের সঙ্গী।বিভিন্ন কারণেই শ্বাসকষ্ট হতে পারে। মূলত সর্দি-কাশি, নিউমোনিয়া, ব্রঙ্কাইটিস, হৃদরোগের কারণ, পেটের সমস্যা হজমের সমস্যা, অ্যালার্জি, হাঁপানি, রক্তস্বল্পতা, অতিরিক্ত মানসিক চাপ এবং টেনশনে থাকলেও শ্বাসকষ্ট হতে পারে।অনেক সময় নাকে ধুলাবালি ঢোকার কারণেও মাঝেমধ্যে হালকা শ্বাসকষ্ট হতে পারে।

শ্বাসকষ্টের সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে কিছু ঘরোয়া সমাধান নিচে দেওয়া হলো:

১. শ্বাসকষ্টের সমস্যা হলে সামনের দিকে ঝুঁকে বসতে হবে। এটি করলে শরীর রিলাক্স হয় এবং শ্বাস-প্রশ্বাস নিতেও সুবিধা হয়। এভাবে ঝুঁকে বসার ফলে ফুসফুস ও হার্টের ওপর চাপ সৃষ্টি হয়। তাই শ্বাসকষ্ট হলে এ পদ্ধতিটি অবলম্বন করতে হবে।

২. পেটের পেশিকে ব্যবহার করে গভীরভাবে শ্বাস নিলে শ্বাসকষ্টের সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যেতে পারে। কোনো সমতল জায়গায় শুয়ে থেকে পেটের ওপরে হাত রাখতে হবে এবং তার পর নাক দিয়ে গভীরভাবে শ্বাস নিতে হবে। এভাবে গভীর শ্বাস গ্রহণ করে কিছুক্ষণ ধরে রেখে শ্বাস ছাড়তে হবে। তবেই শ্বাসকস্ট থেকে মুক্তি মিলতে পারে।

৩.স্টিম ইনহেলার নেওয়ার কারণে অনেক সময় শ্বাসনালিতে ঘন শ্লেষ্মা জমতে পারে, যেটি শ্বাসকার্যে বাধার সৃষ্টি করে। এ ক্ষেত্রে স্টিম ইনহেলেশন বা গরম ভাপ নিলে শ্বাসনালিতে জমে থাকা ঘন শ্লেষ্মা তরলে পরিণত হয়। ফলে শ্বাসনালিতে কোনো বাধা না থাকায় শ্বাসকষ্ট থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।

৪.নেবুলাইজেশন,ইনহেলার,ঔষুধ গ্রহণ করে ব্যক্তি সুস্থ্য থাকতে পারেন।

৫.ব্লাক কফি শ্বাসকষ্ট সমস্যা কমাতে অনেক উপকারী।এতে বিদ্যমান ক্যাফেইন শ্বাসনালির পেশিগুলোকে রিলাক্স করতে সাহায্য করে।

৬.হলুদে বিদ্যমান অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়া শরীরকে সংক্রমণের হাত থেকে রক্ষা করে। দুধের সঙ্গে হলুদ মিশিয়ে পান করলে সেটি শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যা দূর করে।

Leave a Comment