চুলের রং ধরে রাখতে যা করবেন

চুলের রং ধরে রাখতে

সাধারণত লম্বা একটা সময়ের প্রয়োজন চুল কাটলে তা বড় হতে । নিজের লুক নিয়ে নিরীক্ষা করার জন্য চুল কাটা সঠিক সমাধান না–ও হতে পারে । তবে সে ক্ষেত্রে চেহারায় রাতারাতি পরিবর্তন আনতে চাইলে চুলে রং করা বা হেয়ার কালারের ব্যবহার সহজ সমাধান । আর তাই চুল কাটার ঝুঁকি না নিয়ে যেকোনো রং বাছাই করা যায়। কিন্তু চুল রং করার পর তা ধরে রাখা একটা বড় চ্যালেঞ্জ । তবে কারণ, চাইলেই বারবার রং করা বা পরিবর্তন করা যাবে না । আর এতে চুলের স্বাস্থ্যের মারাত্মক ক্ষতি হবে।

তবে চুল রং করার পর শ্যাম্পু করার সঠিক নিয়ম না মানলে রঙের স্থায়িত্ব হবে খুবই অল্প দিন । আর অনেকেই চুল রঙের পর বাড়ি গিয়ে সঙ্গে সঙ্গেই শ্যাম্পু করেন । তবে এতে করে ক্ষতিকর রাসায়নিক ধুয়ে যায় এমন ধারণা অনেকেরই । আার রূপবিশেষজ্ঞরা বলেন, এতে বরং চুলে রং বসার আগেই তা ধুয়ে যায়, যা রং হালকা করে ফেলে । তবে অন্তত ২৪ ঘণ্টা পর শ্যাম্পু করার পরামর্শ দেন তাঁরা ।

রঙিন চুলের উপযোগী পণ্য :
তবে সাধারণ চুল আর রঙিন চুলের মধ্যে পার্থক্য অনেক। আর প্রতিটি পণ্য ব্যবহারের আগে তা রঙিন চুলের জন্য যথাযথ কি না, তা দেখে নেওয়া জরুরি । তবে এতে চুলে রং ধরে রাখা যাবে অনেক দিন । আর বিশেষ করে শ্যাম্পু ও কন্ডিশনার ব্যবহারের আগে দেখে নিতে হবে, যেন তাতে এসএলএস ও অ্যালকোহল না থাকে । তবে এই উপাদানগুলো রঙের উজ্জ্বলতা ও স্থায়িত্ব—দুটোই কমায় । আর তাই যে পণ্যে নারিশিং উপাদান আছে, তা বাছাই করা দরকার। তবে রং করার পর চুলে বেশ একটা রুক্ষতা আসে।

গরম পানি একেবারেই নয় :
তবে চুলে রং থাকা মানে কোনোভাবেই চুলে গরম পানি ব্যবহার করা যাবে না । আর এর কারণ খুবই সহজ, গরম পানি চুলের ময়েশ্চারাইজার কমিয়ে ফেলে এবং চুলে রুক্ষতা আনে । তবে এ ছাড়া চুলের রংও হালকা হয় খুব দ্রুত।

রঙিন চুলের নির্দিষ্ট যত্ন :
রঙিন চুলের জন্য চাই কিছু নির্দিষ্ট যত্ন । তবে যেগুলোর মধ্যে অবশ্যই থাকতে হবে রিচ হেয়ার মাস্ক ও অয়েল থেরাপি, যা রঙিন চুলে ময়েশ্চার নিয়ে আসবে । আর এ ক্ষেত্রে বিশেষজ্ঞদের কাছ থেকে পরামর্শ নেওয়া সব থেকে ভালো সমাধান । তবে যত সুন্দর রংই করা হোক না কেন, চুল যদি রুক্ষ হয়ে যায়, তবে প্রাণহীন মনে হবে। সে ক্ষেত্রে বিশেষজ্ঞরা বেশ কিছু পরামর্শ দিয়ে থাকেন । আর রঙিন চুলে কিছুদিন পরপর অবশ্যই ডিপ কন্ডিশনিং করা বাধ্যতামূলক । তবে চুলে স্পাও করতে হবে নিয়মিত, যেন রঙের ক্ষতিকর উপাদান চুল রুক্ষ করতে না পারে । আর চাইলে ঘরে বসেও স্পা করতে পারেন।

তবে রঙিন চুলে চাইলেই স্টাইলিং পণ্য যেমন স্ট্রেইটনার, রোলার মেশিন, হেয়ার ড্রায়ার, হেয়ার স্প্রে ব্যবহার করা উচিত নয় । তবে এতে চুলের রঙের বয়স কমে । আর এ ছাড়া রঙিন চুল ভেঙে পড়ে যাওয়া এবং ফেটে যাওয়ার মতো সমস্যাও তৈরি হয় । তবে চুলে সরাসরি সূর্যের কড়া আলো লাগলেও রং নষ্ট হয় । আর তাই কন্ডিশন এমন ব্যবহার করতে হবে, যাতে এসপিএফ উপাদান আছে । তবে এ ছাড়া চুল হ্যাট বা স্কার্ফে ঢেকে রাখাই সহজ উপায়।

By নিজস্ব প্রতিবেদক

রংপুরের অল্প সময়ে গড়ে ওঠা পপুলার অনলাইন পর্টাল রংপুর ডেইলী যেখানে আমরা আমাদের জীবনের সাথে বাস্তবঘনিষ্ট আপডেট সংবাদ সর্বদা পাবলিশ করি। সর্বদা আপডেট পেতে আমাদের পর্টালটি নিয়মিত ভিজিট করুন।

Related Post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *