কালো চুল লালচে হওয়ার হাত থেকে রক্ষা করার উপায়

চুলকে লম্বা, ঘন ও স্বাস্থ্যজ্জ্বল করার টিপস

আবহাওয়া এবং আমাদের পূর্ব’পুরুষের জিনের কারণে আমরা দক্ষিন এশিয়ার মানুষজন চুলের রঙ হিসেবে পেয়েছি কালো রঙ। ঘন, কুচকুচে কালো দীঘল চুলের সৌন্দর্য এই দক্ষিণ এশিয়ার নারীদের মধ্যেই বেশি দেখা যায়। কিন্তু ইদানীং আবহাওয়ার বিরূপ ভাব, দূষণ এবং খাদ্যা’ভ্যাসে পরিবর্তনের কারণে সেই কুচকুচে কালো চুল (Hair) এর অধি’কারিণীদের খুঁজেই পাওয়া যায় না।

নানা কারণেই চুলের রঙ কালো থেকে হয়ে যায় লালচে কিংবা কালচে বাদামী। এতে চুলের সৌন্দর্য তো লোপ পায়ই, এর সাথে সাথেই নারীর সৌন্দর্যের কিছুটা হলেও হানি ঘটে। কিন্তু এমন কী করা যায় যাতে কালো চুল কালোই থাকে? লালচে হয়ে যাওয়ার ভয় থেকে মুক্ত থাকতে আজই গড়ে তুলুন এই অভ্যাসগুলো।

রোদে চুল খোলা রেখে ঘুরবেন না
কালো চুল লালচে হয়ে যাওয়ার প্রধান কারণ হচ্ছে কড়া রোদ। রোদে চুল খুলে ঘোরা’ঘুরি করবেন না একেবারেই। এতে করে চুলের কোলাজেন টিস্যুর ক্ষতি হয় এবং চুলের রঙ ব্লিচ হয়ে কালো থেকে লালচে কিংবা কালচে বাদামী রঙ ধারণ করে। রোদে বেরুনোর সময় অবশ্যই একটি স্কার্ফ মাথায় বেঁধে নেবেন। অথবা সাথে একটি ছাতা রাখবেন চুলকে রোদ থেকে বাঁচাতে।

ক্ষার ও অতিরিক্ত কেমি’ক্যাল জাতীয় শ্যাম্পু ব্যবহার করবেন না
শ্যাম্পু কেনার সময় যেন তেন শ্যাম্পু(Shampoo) কিনে আনবেন না। খুব ভালো কোনো ব্র্যান্ডের অল্প কেমিক্যাল সমৃদ্ধ শ্যাম্পু কিনুন। সম্ভব হলে হারবাল শ্যাম্পু কিনে ব্যবহার করুন। কারণ ক্ষার ও কেমি’ক্যালের কারণে চুলের রঙ পরিবর্তিত হয়ে যায় এবং চুল রুক্ষ ও শুষ্ক হয়ে পড়ে।

হেয়ার ড্রায়ার, স্ট্রেইটনার ও কার্লার ব্যবহার কমিয়ে দিন
আপনি যদি প্রতিদিনই চুল শুকোনোর কাজে হেয়ার ড্রায়ার, চুল স্ট্রেইট করার কাজে স্ট্রেইটনার এবং কার্ল করতে কার্লার ব্যবহার করেন তবে আপনার কালো চুল আর কালো থাকবে না। কারণ এইসকল ইলেকট্রনিক জিনিসপত্রের বাবহারে চুলের কোলাজেন টিস্যু ক্ষতিগ্রস্থ হয় ও চুলের রঙ কালো থেকে লালচে হয়ে আসে। তাই এগুলো প্রতিদিন ব্যবহার না করে বিশেষ কোনো অনুষ্ঠানের জন্য ব্যবহার করুন।

চুলের যত্ন নিন প্রোটিন প্যাকে
চুলের রঙ কুচকুচে কালো ধরে রাখতে চাইলে সপ্তাহে অন্তত ১ দিন ব্যবহার করুন একটি প্রোটিন প্যাক। ১ টি ডিম, ১ কাপ টকদই, ভিটামিন ই ক্যাপস্যুল ও নারকেল তেল দিয়ে খুব সহজে আপনি তৈরি করে নিতে পারেন এই প্রোটিন প্যাক। ডিম ফেটিয়ে এতে দই, ভিটামিন ই ক্যাপস্যুল ভেঙে দিয়ে সামান্য নারকেল তেল(Coconut oil) দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিন। এরপর এটি পুরো চুলে এবং মাথার ত্বকে ভালো করে লাগান। ৩০-৪০ মিনিট পর শ্যাম্পু করে চুল ধুয়ে নিন।

By নিজস্ব প্রতিবেদক

রংপুরের অল্প সময়ে গড়ে ওঠা পপুলার অনলাইন পর্টাল রংপুর ডেইলী যেখানে আমরা আমাদের জীবনের সাথে বাস্তবঘনিষ্ট আপডেট সংবাদ সর্বদা পাবলিশ করি। সর্বদা আপডেট পেতে আমাদের পর্টালটি নিয়মিত ভিজিট করুন।

Related Post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *