১৫ রমযান শুক্রবারে পৃথিবীতে কি ঘটতে যাচ্ছে ?

১৫ রমযান শুক্রবারে পৃথিবীতে কি ঘটতে যাচ্ছে ? বেশ কয়েকদিন থেকে সবার মাথায় শুধু এই কথাটাই ঘুরপাক খাচ্ছে। বিশেষ করে এবারের রমযান শুক্রবার দিয়ে শুরু হওয়ায় এত বিভ্রান্তি। সারা বিশ্বে বর্তমানে কিছু কিছু ঘটনা হাদিসের আলোকে মিলে যাচ্ছে বিধায় বিভিন্ন ওলামায়ে কেরামগণ বিভিন্ন ভাবে উক্ত হাদিস সমূহের ব্যাখ্যা প্রদান করছেন। ১৫ রমযান শুক্রবারে পৃথিবীতে কি ঘটতে যাচ্ছে ? কেই আবার বলছেন উক্ত হাদিস সমূহ জাল জয়িফ হাদিস,যাহার কোন ভিত্তি নাই।

১৫ রমযান শুক্রবারে পৃথিবীতে কি ঘটতে যাচ্ছে ?

১৫ রমযান শুক্রবারে পৃথিবীতে কি ঘটতে যাচ্ছে ? দীর্ঘ হাদিসে বর্ণিত ঘটনার রেওয়ায়েত অনুযায়ী রমজানে কথাটি আসবে। শাওয়াল মাসে প্রচন্ড যুদ্ধ সংঘটিত হবে। আরবের গোত্রগুলো জিলকদ মাসে বিদ্রোহ করবে। জিলহজ মাসে হজে লুটপাটের ঘটনা ঘটবে। আর মহরমের শুরু আমার উম্মতের জন্য বিপদ,শেষটা মুক্তি। ১৫ রমযান শুক্রবারে পৃথিবীতে কি ঘটতে যাচ্ছে ? যে বাহনে একজন মুসলমান সেদিন মুক্তি পাবে, তা তার কাছে এক লাখ মূল্যের আমোদ-প্রমোদের ঘরের চেয়ে উত্তম বলে বিবেচিত হবে।'(আল ‍মুজামুল কাবির লিত তবারানি: ১৮/৩৩২/৮৫৩)

১৫ রমজান শুক্রবারে কি পৃথিবীতে বিকট আওয়াজ হবে?

১৫ রমজান শুক্রবারে কি পৃথিবীতে বিকট আওয়াজ হবে? ইমাম মাহদীর নাযিল সংক্রান্ত একটি হাদিসে বলা হয়েছে,রমজানের ১৫ তারিখে শুক্রবার হবে। সেদিন আকাশে বিকট শব্দ হবে। হাদিসটি হল-ফিরোজ দাইলামী বর্ণনা করেন যে,রাসূলুল্লাহ (স) বলেছেন,”এক রমজানে আওয়াজ হবে”। সাহাবায়ে কেরাম জিজ্ঞেস করলেন,হে আল্লাহর রাসূল!রমজানের শুরুতে নাকি মাঝখানে? নাকি শেষে?’রাসুল (সাঃ) বললেন,না, রমজানের মাঝামাঝি।১৫ রমজান শুক্রবারে কি পৃথিবীতে বিকট আওয়াজ হবে?  ঠিক মাঝ রমজানের রাতে। ১৫ রমযান শুক্রবারে পৃথিবীতে কি ঘটতে যাচ্ছে ? শুক্রবার রাতে আকাশ থেকে একটা আওয়াজ আসবে। সেই শব্দের তীব্রতায় ৭০ হাজার মানুষ অজ্ঞান হয়ে পড়বে এবং ৭০ হাজার বধির হয়ে যাবে।

১৫ রমযান শুক্রবারে পৃথিবীতে কি ঘটতে যাচ্ছে ? হাদিসের ব্যাখ্যা দেখুন

১৫ রমযান শুক্রবারে পৃথিবীতে কি ঘটতে যাচ্ছে ? হাদিসের ব্যাখ্যা দেখুন , প্রদত্ত বর্ণনা সঠিক নয়। বরং বিজ্ঞ হাদীস বিশারদগণ একে অত্যন্ত দুর্বল এবং অনেকে বাতিল ও বানোয়াট হাদীস হিসেবে চিহ্নিত করেছেন। এ হাদীসের শেষে সাহাবায়ে কেরাম জিজ্ঞেস করলেন,হে আল্লাহর রাসূল!সেদিন তোমার উম্মতের মধ্যে কে নিরাপদ থাকবে? রাসুল (সাঃ) বলেছেন,’যারা নিজেদের ঘরে অবস্থান করে,সেজদা করে এবং আল্লাহর কাছে আশ্রয় প্রার্থনা করে এবং উচ্চ স্বরে আল্লাহু আকবার বলে। আরেকটা কথা পরে আসবে। ১৫ রমযান শুক্রবারে পৃথিবীতে কি ঘটতে যাচ্ছে ? প্রথম শব্দটি হবে জিব্রাইলের পক্ষ থেকে,দ্বিতীয়টি হবে শয়তানের পক্ষ থেকে।

বিজ্ঞ হাদীস বিশারদগণের মতামত

বিজ্ঞ হাদীস বিশারদগণের মতামত -এ হাদীস সম্পর্কে শায়খ আলবানী (রহঃ) বলেন,হাদীসটি বানোয়াট। ইবনুল জাওযী তার মাউযুয়াত গ্রন্থে হাদিসটি উল্লেখ করেছেন অর্থাৎ বানোয়াট হাদীসের সংগ্রহ। (৩/১৯১)

ইমাম যাহাবী বলেন, হাদীসটি বাতিল। (তারতিবুল মাজুয়াত : ২৭৮)

হায়সামী বলেন, এই হাদীসের বর্ণনায় আব্দুল ওয়াহহাব ইবনুজ জাহহাক নামে একজন বর্ণনাকারী রয়েছেন যিনি মুহাদ্দিসীনদের দৃষ্টিতে মাতরুক বা ধর্মত্যাগী। (মাজমাউয জাওয়ায়েদ : ৭/৩১৩)

বিজ্ঞ হাদীস বিশারদগণের মতামত ইমাম ইবনুল কাইয়্যিম বলেন, “অগ্রিম তারিখ নির্ধারণ করে বিভিন্ন ঘটনার বেশ কিছু হাদিস পাওয়া যায়। সেগুলো সহিহ নয়।’ তার মধ্যে একটি হল- ‘অর্ধ রমজানের শুক্রবার রাতে আওয়াজ হবে,এতে ৭০,০০০ মানুষ মূর্ছা যাবে ৭০,০০০ মানুষ বোবা হয়ে যাবে…’ (আল মানারুল মুনিফ : ৯৬ পৃষ্ঠা)

১৫ রমযান শুক্রবারে পৃথিবীতে কি ঘটতে যাচ্ছে ? আমাদের করনীয়

১৫ রমযান শুক্রবারে পৃথিবীতে কি ঘটতে যাচ্ছে ? আমাদের করনীয় , রাসুল(সাঃ)-এর নামে মিথ্যা হাদিস সমূহ মানুষের মাঝে বিভ্রান্তিকর ভাবে উপস্থাপনের পরিণাম খুবই ভয়াবহ এমনকি জাহান্নামীর সামিল।(বুখারি, আস-সহিহ ১/৫২; ইবনু হাজার, ফাতহুল বারি ১/১৯৯, মুসলিম, আস-সহিহ: ১/৯)। ১৫ রমযান শুক্রবারে পৃথিবীতে কি ঘটতে যাচ্ছে ? তাই আমরা এ রকম হাদিস থেকে নিজেকে হেফাজত রাখব। ১৫ রমযান শুক্রবারে পৃথিবীতে কি ঘটতে যাচ্ছে ? আমাদের করনীয় , তাছাড়া কেয়ামতের আলামত নিয়ে অনেক সহীহ হাদিস রয়েছে আমাদেরকে সেগুলো নিয়ে আলোচনা করা প্রয়োজন। মহান আল্লাহ তায়ালা আমাদের সঠিক হাদিসের আলোকে ঈমান রক্ষা করার তওফিক দান করুন । আমিন।

Leave a Comment

betvisa