১১ কোটি টাকা একটি গাড়ি পার্কিংয়ের জায়গার দাম

তবে একটিমাত্র গাড়ি পার্ক করা যায়, এমন জায়গার দাম কত হতে পারে? আর হংকংয়ের বিলাসবহুল ‘ভিক্টোরিয়া পিক’ এলাকার ১৩৫ বর্গফুট জায়গার দাম শুনলে চোখ কপালে উঠবে। তবে ওই এলাকার বিলাসবহুল হংকং অ্যাপার্টমেন্ট কমপ্লেক্সের একটি গাড়ি রাখার জায়গা বিক্রি হয়েছে ১৩ লাখ মার্কিন ডলারে (বর্তমান বিনিময়মূল্যে ১১ কোটি টাকার বেশি)। আর স্থানীয় গণমাধ্যমে শুক্রবার এ তথ্য জানানো হয়েছে । তবে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলো বলছে, পাহাড়ের ওপরে ভিক্টোরিয়া হারবারের দৃষ্টিনন্দন দৃশ্য দেখার সুযোগের কারণে ওই এলাকার জায়গার এত দাম।

তবে বিশ্বের সবচেয়ে ব্যয়বহুল রিয়েল এস্টেটগুলোও এখানে রয়েছে। আর হংকং শহরের অভিজাত এই আবাসিক এলাকার প্রতি ঔপনিবেশিক আমল থেকে ধনীদের আকর্ষণ রয়েছে। আর বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, হংকং এত বেশি ঘনবসতির শহরে রূপ নিয়েছে যে সেখানে বসবাস বা গাড়ি পার্কিং, যে জন্যই জায়গা কেন হোক না কেন, এর জন্য বিরাট অঙ্কের অর্থ গুনতে হয়।

হংকং প্রায়ই বিশ্বের সবচেয়ে ব্যয়বহুল শহরের তালিকার শীর্ষে উঠে আসে বৈশ্বিক অর্থ-বাণিজ্যের অন্যতম কেন্দ্রে পরিণত হওয়া। তবে এর আগেও পার্কিংয়ের জায়গা সবচেয়ে বেশি দামে বিক্রির রেকর্ড হয়েছিল হংকংয়েই। আর ব্লুমবার্গের তথ্যমতে, ২০১৯ সালে একটি পার্কিংয়ের জায়গা বিক্রি হয়েছিল ৯ লাখ ৮০ হাজার ডলারে । তবে একদিকে হংকংয়ের ধনী ব্যক্তিরা বিলাসবহুল বাড়ি কিনতে কোটি কোটি ডলার খরচ করলেও শহরটির লাখো বাসিন্দাকে ছোট্ট অ্যাপার্টমেন্টের ভাড়া দিতে গিয়ে হিমশিম খেতে হচ্ছে।

আর হংকংয়ে একজন দক্ষ কর্মীকে ৬০ বর্গফুটের একটি ফ্ল্যাট কিনতে হলে ২২ বছরের পুরো আয় লাগবে। তবে এক দশক আগে তা ১২ বছরের আয় দিয়েই সম্ভব ছিল। আর সেখানে ২০০৮ সাল থেকে দক্ষ কর্মীদের বেতনে তেমন হেরফের হয়নি আর্থিক সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান ইউবিএসের ২০১৯ সালের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, । হংতবেকং ঘিরে বেশ কিছুদিন ধরে রাজনৈতিক অস্থিরতার পর এখন আবার সেখানে বিলাসবহুল সম্পদের বাজার ঘুরে দাঁড়াতে শুরু করেছে।

Leave a Comment