সকালের লড়াইয়ের পর ফের বিপাকে বাংলাদেশ

ক্রাইস্টচার্চ টেস্টের তৃতীয় দিন সকালের সেশনে লড়াই করল বাংলাদেশ। টপ অর্ডারদের ব্যর্থতায় আগের দিন প্রথম ইনিংসে মাত্র ১২৬ রানেই গুটিয়ে যায় সফরকারীরা। ফলো-অন করতে নেমে এদিন লড়াইয়ের মানসিকার দেখা মিলে।যদিও লাঞ্চের পর ২৩ রানের মধ্যে তিন উইকেট হারিয়ে ফের বিপাকে মুমিনুল হকরা।

দ্বিতীয় সেশন শেষে বাংলাদেশের স্কোর ১৫২/৫। লিটন দাস ২৩ ও নুরুল হাসান সোহান ৬ রানে অপরাজিত আছেন। নিউজিল্যান্ডকে আবার ব্যাট করাতে এখনো ২৪৪ রান প্রয়োজন সফরকারীদের।

স্বাগতিকরা ৬ উইকেটে ৫২১ রান তুলে প্রথম ইনিংস ঘোষণা করেছিল। বিপরীতে বাংলাদেশের প্রথম ইনিংস ১২৬ রানেই থেমে যায়। এখন ইনিংস হার এড়ানোর জন্য লড়ছে টাইগাররা।

সিরিজের প্রথম টেস্ট জেতায় ১-০ তে এগিয়ে থেকে এই ম্যাচ খেলতে নামে বাংলাদেশ। হার এড়াতে পারলে কিউইদের মাটিতে টেস্ট সিরিজ জয়ের ইতিহাস গড়তে পারবে বাংলাদেশ। যদিও সেই স্বপ্ন এখন অবাস্তবই বলতে হবে।

মঙ্গলবার সকালে দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করা বাংলাদেশ ওপেনার সাদমান ইসলামকে দ্রুতই হারায়। দলীয় ২৭ রানে ফেরেন তিনি। তবে ২১ রানই এসেছিল সাদমানের ব্যাট থেকে। তিনি ফেরেন কাইল জ্যামিসনের শিকার হয়ে।

আরেক ওপেনার মোহাম্মদ নাঈম তিনে নামা নাজমুল হোসেন শান্তর সঙ্গে গড়েন ৪৪ রানের জুটি। ২৯ রান করা শান্তকে ফিরেয়ে জুটি ভাঙেন নিল ওয়াগনার।

প্রথম সেশনে সাদমান-শান্তকে হারিয়ে ৭৪ রান তুলে টাইগাররা। লাঞ্চের পর দলকে ভালোভাবেই এগিয়ে নিচ্ছিলেন অভিষিক্ত নাঈম ও অধিনায়ক মুমিনুল। কিন্তু ইনিংসের ৩৭তম ওভারে নাঈমের আউট ম্যাচের মোড় ঘুড়িয়ে দেয়।

২৪ রান করা নাঈমকে ফেরার টিম সাউদি। এরপর ৩৭ রান করে মুমিনুল ফিরে যান ওয়াগনারের শিকার হয়ে। দুই ওভার পর ইয়াসির আলিকেও (২) তুলে নেন ওয়াগনার। বলতে গেলে ওয়ানগানের ওই স্পেলটাই ফের খাদের কিনারায় ঠেলে দেল বাংলাদেশকে।

Leave a Comment