রোহিঙ্গা ক্যাম্পে মাদক ও অস্ত্রের ব্যবসা বন্ধে প্রয়োজনে গুলি ছুড়তে হবে

কক্সবাজারে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে মাদক ও অস্ত্রের ব্যবসা বন্ধে প্রয়োজনে গুলি করা হবে বলে মন্তব্য করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন। আজ শুক্রবার দুপুরে সিলেটে সাংবাদিকদের সঙ্গে প্রশ্নোত্তর পর্বে তিনি এ কথা বলেন। পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, রোহিঙ্গা ক্যাম্পের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি উন্নত করতে গতকাল বৃহস্পতিবার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সভাপতিত্বে একটি বড় সভা হয়েছে। এরপর (আজকের) দুর্ঘটনা, এটা তো খুবই আতঙ্কের বিষয়।

মুহিবুল্লাহ হত্যার সঙ্গে পরবর্তী সন্ত্রাসী তৎপরতা কিংবা অপকর্মের যোগসাজশ রয়েছে কি না, সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘বিভিন্ন লোক বলছেন ওখানে মাদকের ব্যবসা হয়। আবার কেউ কেউ তথ্য দিয়েছেন, কিছু উইপন ও বন্দুকটন্দুকও আনা হয়। আমরা এসব নিয়ে গতকাল আলোচনা করেছি। আমার প্রস্তাব হলো, এই ড্রাগ ও অস্ত্র আসা পুরোপুরি বন্ধ করার জন্য প্রয়োজনে গুলি ছুড়তে হবে। অনেক লোক (রোহিঙ্গা) ফেরত যেতে চান না, তাঁদের স্বার্থে আঘাত লাগে।’

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আমার প্রস্তাব হলো, এই ড্রাগ ও অস্ত্র আসা পুরোপুরি বন্ধ করার জন্য প্রয়োজনে গুলি ছুড়তে হবে।’ ৫ অক্টোবর সিলেটে এক অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে পররাষ্ট্রমন্ত্রী মিয়ানমার সীমান্তে অবৈধ কর্মকাণ্ড বন্ধ না হলে গুলি চালানোর কথা বলেছিলেন। পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছিলেন, মিয়ানমার ও বাংলাদেশ সীমান্তে গুলি না চালানোর সিদ্ধান্ত হয়েছিল। কিন্তু অবৈধ কর্মকাণ্ড বন্ধে এখন থেকে গুলি চালানো হবে। তাহলে মানব, মাদক ও অস্ত্রের চোরাচালান বন্ধ হবে। তবে এ বিষয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সিদ্ধান্ত নেবে।

রাজনৈতিক ও স্থানীয় উন্নয়নমূলক বিভিন্ন কর্মসূচিতে অংশ নিতে আজ সকালে দুই দিনের সফরে সিলেটে তাঁর নির্বাচনী এলাকায় এসেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী। আজ নগরের শাহি ঈদগাহ এলাকায় ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন হাসপাতালের সম্মেলনকক্ষে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন তিনি। ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন অব বাংলাদেশ এবং জালালাবাদ অ্যাসোসিয়েশনের উদ্যোগে ‘রিজলভ টু সেইভ লাইফ’ কার্যক্রমবিষয়ক ওই সভা শেষে তিনি স্থানীয় সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন। বিকেলে সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের কার্যকরী কমিটির সদস্যদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় মিলিত হন পররাষ্ট্রমন্ত্রী। আব্দুল মোমেন সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের কার্যকরী কমিটির একজন সদস্য।

Leave a Comment