রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে দ্বিতীয় দিনের মতো চলছে অবস্থান ধর্মঘট

বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের (বেরোবি) অর্থনীতি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান জনি পারভীনের বিরুদ্ধে দায়িত্বহীন, স্বেচ্ছাচারিতা, হয়রানি, অসৌজন্যমূলক আচরণ, ক্ষমতার অপব্যবহারসহ নানা অনিয়মের অভিযোগ এনে এবং তাকে অপসারণের দাবিতে দ্বিতীয় দিনের মতো প্রশাসনিক ভবনের সামনে অবস্থান ধর্মঘট পালন করছে বিভাগটির শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। 


আজ সোমবার (২০ ডিসেম্বর) সকাল সাড়ে দশটা থেকে তারা এই কর্মসুচী পালন করছেন। এর আগে গতকাল রবিবার একই দাবিতে বেলা ২টা পর্যন্ত কর্মসূচি পালন করে শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।


জনি পারভীনকে বিভাগীয় প্রধান পদ থেকে অপসারণ না করা পর্যন্ত এই অবস্থান ধর্মঘট অব্যাহত থাকবে বলে জানিয়েছেন আন্দোলনকারীরা। 


আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা জানান, অর্থনীতি বিভাগ সেশনজটমুক্ত ও আইকিউএসি রেটিংয়ে প্রথম স্থানপ্রাপ্ত বিভাগ ছিল। কিন্তু জনি পারভীন বিভাগীয় প্রধান হওয়ার পর থেকে লাগাতার অনুপস্থিত থাকছেন। করোনাকালীন সময়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগে অনলাইনে ক্লাস চালু করলেও তিনি এক বছর সাত মাসেও কোনো একাডেমিক সভা আহ্বান এবং শিক্ষকদের সঙ্গে কোনো ধরনের আলোচনা করেননি। ফলে বিভাগের শিক্ষার্থীরা দীর্ঘ সেশনজটে পড়েছেন। আমরা তার অপসারণ চাই।


আন্দোলনরত একাধিক শিক্ষক জনান, কর্মকর্তা কর্মচারীদের সঙ্গে অসাদাচারণ করেন। শিক্ষকদের আপগ্রেডেশনের আবেদনের জন্য অভিজ্ঞতা সনদ অগ্রায়নের আবেদন, শ্রান্তি বিনোদনের আবেদন কর্তৃপক্ষের কাছে না পাঠিয়ে দীর্ঘদিন আটকে রেখেছেন। তার এমন কর্মকান্ডে শিক্ষকদের ক্যারিয়ার হুমকির মুখে পড়েছে। 


এ বিষয়ে অর্থনীতি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান জনি পারভীন গতকাল রবিবার বলেন, যারা অনিয়ম করেছে, দুর্নীতি করেছে, শিক্ষার্থীদের রেজাল্ট না দিয়ে আটকিয়ে রেখেছে, তিনটি এ্যাকাডেমিক মিটিং এ আসেনি, তারাই আজ আন্দোলন করছে। আমি বিষয়টি ভিসি স্যারকে জানিয়েছি। তাদের এ অন্যায় মেনে নেয়া যায় না। পুরো বিষয়টি আমি প্রেষ কানফারেন্স করে জানাবো।

By নিজস্ব প্রতিবেদক

রংপুরের অল্প সময়ে গড়ে ওঠা পপুলার অনলাইন পর্টাল রংপুর ডেইলী যেখানে আমরা আমাদের জীবনের সাথে বাস্তবঘনিষ্ট আপডেট সংবাদ সর্বদা পাবলিশ করি। সর্বদা আপডেট পেতে আমাদের পর্টালটি নিয়মিত ভিজিট করুন।

Related Post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *