রেল যোগাযোগের আওতায় আসছে তিন পার্বত্য জেলা

রেল যোগাযোগের আওতায় আসছে তিন পার্বত্য জেলা বান্দরবান, রাঙ্গামাটি ও খাগড়াছড়ি। পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠকে মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, তিন পার্বত্য জেলায় রেল যোগাযোগ ব্যবস্থা চালুর বিষয়ে বাংলাদেশ রেলওয়ে কর্তৃক একটি মহাপরিকল্পনা (মাষ্টার প্ল্যান) গ্রহণ করেছে। ওই পরিকল্পনা আওতায় ইতোমধ্যে একটি প্রকল্প নেওয়া হয়েছে।

আজ সোমবার জাতীয় সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত ওই বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন সংসদীয় কমিটির সভাপতি মো. দবিরুল ইসলাম।

বিজ্ঞাপন

বৈঠকে কমিটির সদস্য পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর উ শৈ সিং, এ বি এম ফজলে করিম চৌধুরী, কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা ও বাসন্তী চাকমা এবং সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
কমিটি সূত্র জানায়, বৈঠকে জনগণের যাতাযাত সুবিধা ও পর্যটন শিল্প বিকাশের লক্ষ্যে তিন পার্বত্য জেলায় রেল লাইন স্থাপনের প্রস্তাব নিয়ে আলোচনা হয়। এ সময় জানানো হয়, সরকার গৃহীত মহাপরিকল্পনার আওতায় তিন পার্বত্য জেলায় রেল যোগাযোগ ব্যবস্থা চালুর লক্ষ্যে চট্টগ্রাম থেকে কাপ্তাই পর্যন্ত ৪২ কিলোমিটারের অধিক রেললাইন স্থাপনে প্রায় ৯ হাজার কোটি টাকার একটি প্রকল্পের প্রাথমিক প্রস্তাব তৈরি করেছে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ। ‘জানালীহাট-চুয়েট-কাপ্তাই ডুয়েল গেজ সংযোগ রেললাইন নির্মাণ’ শীর্ষক ওই প্রকল্পে অর্থায়ন নিশ্চিত হলে বাস্তবায়ন কাজ শুরু হবে। আগামী ২০২৬ সালের মধ্যেই প্রকল্পটির কাজ শেষ করতে চায় রেল কর্তৃপক্ষ।

এদিকে বৈঠকে তিন পার্বত্য জেলার বনায়ন করার জন্য জমি লিজ নিলেও নির্ধারিত সময়ে বনায়ন না করায় ক্ষোভ প্রকাশ করা হয়। কমিটির পক্ষ থেকে লিজ নিয়ে বনায়ন করা হয়নি, সেই লিজকৃত জমির বর্তমান অবস্থা কমিটিকে অবহিত করার জন্য বলা হয়েছে। এ সংক্রান্ত প্রতিবেদন নিয়ে কমিটির আগামী বৈঠকে সংশ্লিষ্ট জেলা প্রশাসকদেরকে উপস্থিত থাকার বিষয়টি নিশ্চিত করার জন্য মন্ত্রণালয়কে বলা হয়েছে।

এছাড়া বৈঠকে তিন পার্বত্য জেলায় সরকারী কর্মকর্ত-কর্মচারীদের জন্য বাসভবন বা কোয়ার্টার নির্মাণ এবং পরিকল্পিত হাউজিং এর প্রকল্প গ্রহণসহ পার্বত্য জেলায় বিদ্যুতায়নের ওপর গুরুত্বরোপ করা হয়।

Leave a Comment