রাশিয়া-চীনের সম্পর্ক আরও জোরদার হবে: লাভরভ

রাশিয়া-ইউক্রেন সংকট ঘিরে সৃষ্ট রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে রাশিয়া ও চীনের সম্পর্ক আরও শক্তিশালী হবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরভ। আজ শনিবার রাশিয়ার বার্তা সংস্থা ইন্টারফ্যাক্সের বরাত দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে বিবিসি।রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আন্তর্জাতিক ব্যবস্থা যেসব ভিত্তির ওপর গড়ে উঠেছে, তার সব কটিকে যখন পশ্চিমারা চরমভাবে অবমূল্যায়ন করছে, দুটি পরাশক্তি হিসেবে অবশ্যই আমাদের চিন্তাভাবনা করা উচিত, বিশ্বকে কীভাবে এগিয়ে নেব।’

চীনের কাছে রাশিয়া অস্ত্র সহায়তা চেয়েছে বলে সম্প্রতি বিভিন্ন আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে খবর বের হয়। এরপর শুক্রবার চীনের প্রেসিডেন্ট সি চিন পিংয়ের সঙ্গে প্রায় দুই ঘণ্টা ভিডিও কলে কথা বলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।হোয়াইট হাউসের দেওয়া তথ্য বলছে, রাশিয়াকে অস্ত্র সরবরাহ করার পরিণতি নিয়ে গতকালের আলাপচারিতায় চীনের প্রেসিডেন্টকে হুঁশিয়ারি দেন বাইডেন। অন্যদিকে চীনা রাষ্ট্রীয় সম্প্রচারমাধ্যম সিসিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়, রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ কোনো পক্ষের উপকারে আসবে না বলে ভিডিও কলে উল্লেখ করেন সি চিন পিং।গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে রাশিয়ার হামলা শুরুর পর যুক্তরাষ্ট্রসহ বেশির ভাগ দেশই কিয়েভের পক্ষে দাঁড়ায়। তবে এখন পর্যন্ত রাশিয়ার বিরুদ্ধে কোনো পদক্ষেপ নেয়নি চীন। জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে রাশিয়ার অভিযান বন্ধের প্রস্তাবে ভোট দেওয়া থেকে বিরত ছিল দেশটি। এমনকি ইউক্রেনে হামলার নিন্দাও জানায়নি বেইজিং।

Leave a Comment