রংপুরে লালবাগসহ ৩৫ পশুর হাট বন্ধ

স্থানীয় প্রশাসন করোনা সংক্রমণ রোধে রংপুরে সর্ববৃহৎ লালবাগ পশুরহাটসহ ৩৫ টি হাট বন্ধ করে দিয়েছে। আজ রোববার (৪ জুলাই) ছিল লালবাগের হাট। কিন্তু সকালে স্থানীয় প্রশাসনের ম্যাজিস্ট্রেট, র‌্যাব, পুলিশ গিয়ে হাট বন্ধ করে দেন ।
ফলে অনেকেই গরু বিক্রি করতে এসে ফিরে গেছেন। সেই সাথে হাটের ইজারাদাররা দুশ্চিন্তায় পড়েছেন।

জানা গেছে, রংপুর নগরীতে লালবাগ সবচেয়ে বড় হাট । কোরবানির ঈদের প্রধান আকর্ষন এই হাট। সপ্তাহে ২ দিন রোববার ও বুধবার এই হাট বসে। ঈদের ১ মাস আগে থেকে এখানে কোরবানি পশু কেনাবেচা চলে। সারা দেশে কঠোর লকডাউন চলছে। পশুরহাটের জনসমাগম বৃদ্ধি পেলে করোনা সংক্রণ বৃদ্ধি পাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। তাই স্থানীয় প্রশাসন নগরীর লালবাগ, বুড়িরহাটসহ জেলার প্রায় ৩৫টি পশুরহাট বন্ধ ঘোষনা করেছেন।

লালবাগহাটের ইজারাদার আব্দুল্লা হিল কাফি বলেন, প্রায় ২.৫ কোটি টাকায় হাটের ডাক নেয়া হয়েছে। হাটের সবচেয়ে বড় আয়ের উৎস কোরবানির বেচাকেনা। হাট বন্ধ এসময় থাকলে তারা লোকসানের মুখে পড়বেন।

জেলা প্রশাসক আসিব আহসান বলেন, করোনা সংক্রমণ রোধে আপাতত পশুর হাট বন্ধ রাখার স্ধিান্ত নেয়া হয়েছে। সিদ্ধান্তের আলোকে জেলার সবকটি পশুর হাট পরবর্তি নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত বন্ধ থাকবে।

Leave a Comment