মূত্রের সাধারণ বৈশিষ্ট্য

আমাদের মূত্রের রয়েছে নির্দিষ্ট কিছু বৈশিষ্ট্য।সেইসব বৈশিষ্ট্য নিয়ে আজকে আমরা জানব।

আমাদের মূত্রের পরিমাণ ৫০০-২৫০০ মিলিলিটার/দিন।এর অসমোলারিটি ৬০০-৯০০ মিলিঅসমোল/লিটার।পিএইচ ৪.৫-৮।মূত্রে সাধারণত খুব সামান্য পরিমাণে প্রোটিন থাকে।কিংবা থাকেনা বলা চলে।

মূত্রের অজৈব পদার্থের মধ্যে থাকে সোডিয়াম, পটাশিয়াম, ক্লোরাইড, ক্যালসিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম, ফসফেট।
আর জৈব পদার্থের মধ্যে থাকে এমোনিয়া, ইউরিয়া, ইউরিক এসিড, ক্রিয়েটিনিন, ইউরোবিলিনোজেন।

★অস্বাভাবিক অবস্থাঃ
অনেক সময় মূত্রের পরিমাণ বেড়ে যেতে পারে।সাধারণত ডায়াবেটিসে এমন হয়ে থাকে।আবার রেনাল ফেইলার, কার্ডিয়াক ফেইলারের ক্ষেত্রে মূত্রের পরিমাণ কমে যায়।
এসিডোসিস হলে মূত্রের পিএইচ কমে যায় আর এলকালোসিস হলে পিএইচ বেড়ে যায়।
মূত্রে ক্রিয়েটিনিনের সাধারণ ঘনত্ব ০.৭-১.৪% আর ইউরিয়ার ঘনত্ব ১৫-৪০%.

মূত্রে সব উপাদানেরই নির্দিষ্ট একটি পরিমাণ আছে।এর চেয়ে বেড়ে গেলেও শরীরে অসুবিধা হয় আবার কমে গেলেও অসুবিধা হয়।তবে মূত্রকে ঠিক রাখতে আমাদের নিয়মিত প্রচুর পরিমাণে পানি পান করতে হবে।

©দীপা সিকদার জ্যোতি

Leave a Comment