মিয়ানমারের ওপর চাপ অব্যাহত রেখেছে বাইডেন প্রশাসন

রোহিঙ্গাদের শুধু বাংলাদেশ নয়, জাতিসংঘের প্রতি দায়বদ্ধতার কথা উল্লেখ করে মার্কিন রাষ্ট্রপতি জো বিডেনের জলবায়ু বিষয়ক বিশেষ দূত জন কেরি বলেছেন, রোহিঙ্গাদের আশ্রয় করে বাংলাদেশ যে মানবতার উদাহরণ সৃষ্টি করেছে তা প্রশংসনীয়। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সবসময় এই সংকট সমাধানের জন্য কাজ করবে। এবং জো বিডেন প্রশাসন এই বিষয়ে মিয়ানমারের উপর চাপ অব্যাহত রেখেছে।

শুক্রবার রাজ্য অতিথি ভবন পদ্মে যৌথ সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, তাঁর এই সফরটি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আসন্ন জলবায়ু সম্মেলনে আমন্ত্রণ জানাতে ছিল। বাইডেন প্রশাসন ইতিমধ্যে একটি বাসযোগ্য বিশ্ব গড়ার জন্য প্যারিস চুক্তিতে ফিরে এসেছিল। বিশ্বের ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে জলবায়ু পরিবর্তন সম্পর্কে আমাদের সচেতন হওয়া দরকার। এবং এই প্রক্রিয়াতে অবশ্যই সবার কার্যকর অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে হবে।

তিনি আরও যোগ করেছেন যে এপ্রিল মাসে অনুষ্ঠিত জলবায়ু সম্মেলনের মূল প্রতিপাদ্য হ’ল একসাথে সবুজ বিশ্ব প্রতিষ্ঠা করা। জলবায়ু পরিবর্তনে আক্রান্ত দেশগুলির মধ্যে বাংলাদেশ অন্যতম। জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে যে ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে তা মোকাবেলায় বাংলাদেশ নেতৃত্ব দিয়েছে।

এর আগে, বিদেশমন্ত্রী ড. জন কেরির সাথে সাক্ষাত করলেন একে আবদুল মোমেন। বৈঠক শেষে যৌথ সংবাদ সম্মেলনে এক প্রশ্নের জবাবে কেরি বলেন, বাংলাদেশ সরকার রোহিঙ্গাদের প্রতি অত্যন্ত সদয়। বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সরকার রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়েছে। এর জন্য বাংলাদেশকে ধন্যবাদ।

জন কেরি শুক্রবার সকালে দিল্লি থেকে একটি বিশেষ বিমানে ঢাকায় পৌঁছেছিলেন। তিনি হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছলে পররাষ্ট্রমন্ত্রী তাকে স্বাগত জানান। একে আবদুল মোমেন।

Leave a Comment