মাত্র ১০০ দিনে ৮ লাখ মানুষকে হত্যা, সেই বাগোসোরার মৃত্যু কারাগারে

মধ্য আফ্রিকার দেশ রুয়ান্ডায় ১৯৮৪ সালে মাত্র ১০০ দিনে আট লাখ মানুষকে হত্যার ‘মূলহোতা’ থিওনেস্টে বাগোসোরা মারা গেছেন।

মালির একটি কারাগারে তার মৃত্যু হয়েছে বলে শনিবার দেশটির কর্মকর্তারা বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে জানিয়েছেন।

মানবতাবিরোধী অপরাধে তৎকালীন ইন্টারন্যাশনাল ক্রিমিনাল ট্রাইবুনাল ফর রুয়ান্ডা (আইসিটিআর) বাগোসোরাকে আমৃত্যু কারাদণ্ড দিয়েছিল। পরে শাস্তি কমিয়ে ৩৫ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক মালির এক কারা কর্মকর্তা বলেন, ‘এটি নিশ্চিত। ৮০ ওপরে বয়স হয়েছিল তার। গুরুতর অসুস্থ ছিলেন, হার্টে সমস্যা ছিল।’

‘বেশ কয়েকবার তাকে হাসপাতালে ভর্তি করতে হয়েছিল, তিনবার অস্ত্রোপচারও করা হয়েছিল। আজ একটি ক্লিনিকে তার মৃত্যু হয়েছে’ যোগ করেন তিনি।

উল্লেখ্য, ১৯৯৪ সালে রুয়ান্ডার তৎকালীন প্রেসিডেন্ট জুভেনাল হাবিয়ারিমানাকে বহনকারী বিমানকে গুলি করে ভূপাতিত করা হলে তিনিসহ সব আরোহী নিহত হন।

এরপর প্রতিরক্ষামন্ত্রী বাগোসোরা দেশটির নিয়ন্ত্রণ নেন। প্রেসিডেন্টকে হত্যার জন্য সংখ্যালঘু টুটসি বিদ্রোহীদের দায়ী করে তাদের ও প্রগতিশীল হুতুদের হত্যা শুরু করে বাগোসোরার অধীনস্ত সেনা ও ইন্টেরাহামওয়ে হুতু মিলিশিয়ারা।

তারা মাত্র ১০০ দিনে প্রায় ৮ লাখ টুটসি ও প্রগতিশীল হুতুকে হত্যা করে। এই গণহত্যার জন্য বাগোসোরাসহ ৯৩ জনের বিচার করা হয়। বিচারে বাগোসোরা দোষী সাব্যস্ত হন।

গণহত্যা চলাকালীন রুয়ান্ডায় থাকা জাতিসংঘ শান্তিরক্ষী বাহিনীর প্রধান কানাডার জেনারেল রোমিও ডালেয়ার বাগোসোরাকে ওই গণহত্যার ‘মূলহোতা’ বলে জানান।

By নিজস্ব প্রতিবেদক

রংপুরের অল্প সময়ে গড়ে ওঠা পপুলার অনলাইন পর্টাল রংপুর ডেইলী যেখানে আমরা আমাদের জীবনের সাথে বাস্তবঘনিষ্ট আপডেট সংবাদ সর্বদা পাবলিশ করি। সর্বদা আপডেট পেতে আমাদের পর্টালটি নিয়মিত ভিজিট করুন।

Related Post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *