মনে হয়, ইউএনও, ডিসি, তাঁরাই দেশটার মালিক

সরকারি কর্মকর্তাদের ‘খবরদারিতে’ জাতীয় সংসদে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য দবিরুল ইসলাম। তাঁর মতে, এখন জনপ্রতিনিধিরা নন, প্রকৃত ক্ষমতার মালিক তাঁরাই (সরকারি কর্মকর্তারা)।

আজ বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর আনা ধন্যবাদ প্রস্তাবের আলোচনায় অংশ নিয়ে দবিরুল ইসলাম বলেন, ‘বর্তমানে আমাদের এলাকায় যে সরকারি কর্মকর্তা আছেন—ইউএনও (উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা), ডিসি—তাঁরাই মনে হয় দেশটার মালিক। তাঁরা যা করেন, সেটাই চলে। একটা কম্বল পর্যন্ত আমরা দিতে পারি না। নিজেরা আমরা কিনে দিচ্ছি, কিন্তু সরকারি যে ত্রাণ আসে, সেগুলোর একটাও আমাদের দেওয়া হয় না। আমরা চাই, তাঁরা দয়া করে বলেন, “লোকটাকে পাঠিয়ে দিন একটা স্লিপ দিয়ে। আমি কম্বলটা দিয়ে দেব।” এই হচ্ছে আমাদের অবস্থা।’

 

আওয়ামী লীগের এই সংসদ সদস্য বলেছেন, ‘এই সংসদে অনেকেই আছেন, যাঁদের এলাকায় কর্মকর্তারা রাজত্ব চালাচ্ছেন। আমরা নামমাত্র নির্বাচিত হয়েছি, প্রকৃত ক্ষমতার মালিক তাঁরাই।’

ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রমে সংসদ সদস্যকে সম্পৃক্ত না করায় ক্ষোভ প্রকাশ করে দবিরুল ইসলাম বলেন, ‘আমরা ইউএনও, সরকারি কর্মকর্তা যাঁরা, তাঁদের দয়ায় চলছি। আমি সাতবারের এমপি।’

নিজ জেলা ও নিজের নির্বাচনী এলাকায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তারাই সবকিছু করছেন উল্লেখ করে ঠাকুরগাঁও–২ আসনের সংসদ সদস্য দবিরুল বলেন, ‘ভাবটা এই যে তাঁদের কথায় যুদ্ধ করে দেশটা স্বাধীন হয়েছিল। আমরা তাঁদের কাছে অবাঞ্ছিত ব্যক্তি। আমরা কিছু চাইলে, কোন কাজ করতে বললে, কোন লোক পাঠালে আমাদের কথা শোনা হয় না।’

Leave a Comment

betvisa