বিবাহিত জীবন সুখের করতে রইল কিছু টিপস

যে কোনও পরিস্থিতেই তাঁদের সম্পর্ক অটুট থাকবে বিবাহিত দম্পতিরা একে অপরেকে বিশ্বাস,ভালোবাসার মাধ্যমে দুজনের প্রতি প্রতিশ্রুতিবদ্ধ হলে । তবে পার্টনারের যদি কিছু প্রয়োজন হয় বা কিছু ইচ্ছা হয় তবে সেই চাহিদা পূরণ করা এবং প্রয়োজনে পাশে থাকাই উপযুক্ত পার্টনারের কর্তব্য । আর যে কোনও সম্পর্কেই Possessiveness থাকা ভাল তবে অতিরিক্ত নিয়ন্ত্রণ সম্পর্কে প্রভাব আনতে পারে, তাই সম্পর্কে বিশ্বাস থাকাটা অনেক বেশি প্রয়োজন ।

তবে যে কোন সম্পর্ক তখনই সুখের হয় যখন আপনি নিজে সুস্থ ও ভাল থাকবেন, আপনার পার্টনারের উপর নির্ভর করে সুখী হওয়া কোনও উপায় নয় । আর একে অপরের সঙ্গে কথা বলার আগে ভেবে কথা বলুন, আপনার পার্টনারের খারাপ লাগতে পারে এমন কোনও কথা বলার আগে ভেবে তবেই বলবেন ।

আর ২ পরিবারের সঙ্গে দম্পতি সামাজিক মূল্যবোধগুলি বিকাশ করলে তাদের সমাজে নিজেদের পরিচিত বাড়বে একটি বিবিাহ মানেই ২টি পরিবারের মিলন । তবে বিয়ে হয়ে গেলেও অনেকেই মনে করেন, ভালবাসার কথা আলাদা করে জানাবার দরকার নেই, তবে বিয়ের পরেও ভালবাসার কথা পার্টনারকে জানানো সম্পর্কের পক্ষে ভাল ।

আর বিবাহের সম্পর্ক কোনও কোনও ক্ষেত্রে প্রেমের চেয়েও বড়, এতে ছেলে-মেয়ের সঙ্গে ২টি পরিবারেরও মিলন হয়, একে অপরের সিদ্ধান্ত, বিরোধিতা এবং মনোভাবকে সম্মান করা দুজনের কর্তব্য। বিয়ের পরে ভালবাসার জন্য একে অপরকে প্রমাণ দেওয়ার কিছু নেই বরং একে অপরকে সম্মান করা উচিত ।

‍ৃ

Leave a Comment

betvisa