বঙ্গবন্ধু সেতু-ঢাকা মহাসড়কে ৩৬ কিলোমিটার যানজট

টাঙ্গাইল

বঙ্গবন্ধু সেতু-ঢাকা মহাসড়কে ৩৬ কিলোমিটার এলাকা জুড়ে যানজট তৈরি হতে দেখা যায়। শনিবার দিনভর যানজটে গাড়ি চালক ও যাত্রীরা সীমাহীন দুর্ভোগের শিকার হয়েছেন।

অতিরিক্ত গাড়ির চাপে বঙ্গবন্ধু সেতুর টোলপ্লাজায় মাঝে মাঝে টোল আদায় বন্ধ রাখায় যানজট দীর্ঘস্থায়ী হয়। টাঙ্গাইলের জেলা প্রশাসক ডক্টর মো. আতাউল গনি, পুলিশ সুপার সঞ্জিত কুমার রায় দুপুরে মহাসড়ক পরিদর্শন করেছেন।

সরেজমিনে জানা যায়, শনিবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে বঙ্গবন্ধু সেতুর টোলপ্লাজা থেকে টাঙ্গাইল সদর উপজেলার করটিয়া হাট বাইপাস পর্যন্ত ৩৬ কিলোমিটার এলাকা জুড়ে যানজট ছিল। দুপুর আড়াইটায় বঙ্গবন্ধু সেতুর টোলপ্লাজা থেকে টাঙ্গাইল শহরের ঘারিন্দা বাইপাস পর্যন্ত ২৮ কিলোমিটার এলাকাজুড়ে যানজট ছিল। দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে সেতুর টোলপ্লাজা থেকে কালিহাতী উপজেলার পৌলী ব্রিজ পর্যন্ত যানজট ছিল।

করোনায় ১৭দিন গণপরিবহন বন্ধ থাকার পর গত ১৫ জুলাই কঠোর লকডাউন তুলে নিলে ঈদে ঘরমুখো মানুষ ও পশুবাহী ট্রাকের চাপে প্রতিদিন মহাসড়কে যানজট হচ্ছে। ধারাবাহিকভাবে তিন দিন ধরে যানজট হওয়ায় শনিবার দুপুরে টাঙ্গাইলের জেলা প্রশাসক ডক্টর মো. আতাউল গনি, পুলিশ সুপার সঞ্জিত কুমার রায় মহাসড়ক পরিদর্শন করেন। এ সময় তারা মহাসড়কে যানজট নিরসন ও যাত্রীদের নিরাপত্তায় হাইওয়ে পুলিশের পাশাপাশি র‌্যাব, ব্যাটালিয়ন আনসার ও ছয় শতাধিক পুলিশ মোতায়েন করেন।

বঙ্গবন্ধু সেতুর টোলপ্লাজা সূত্র জানায়, স্বাভাবিক অবস্থায় সেতু দিয়ে প্রতিদিন ১২-১৩ হাজার যানবাহন পারাপার হয়। ঈদকে সামনে রেখে সেতু দিয়ে যানবাহন পারাপারের সংখ্যা ২-৩গুন বেড়েছে। শুক্রবার সকাল ছয়টা থেকে শনিবার সকাল ছয়টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় ৩৩ হাজার ৯১২টি যানবাহন পারাপার হয়েছে। এতে টোল আদায় হয়েছে দুই কোটি ৯২ লাখ ৭৪ হাজার ৮০০ টাকা। এছাড়া অতিরিক্ত গাড়ির চাপের কারণে গত ২৪ ঘণ্টায় বেশ কয়েকবার টোল আদায় বন্ধ রাখা হয়।

এলেঙ্গা হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ইয়াসির আরাফাত জানান, ঈদুল আজহাকে সামনে রেখে ঘরমুখো মানুষের পাশাপাশি কোরবানির পশুবাহী যানবাহনের সংখ্যা অনেক বেড়েছে। দিনরাত স্বাভাবিকের চেয়ে ২-৩গুণ বেশি যানবাহন চলাচল করছে। চার লেন বিশিষ্ট মহাসড়কে ৮-১০ সারিতে গাড়ি চলাচল করায় যানজট হচ্ছে।

মহাসড়ক পরিদর্শন করে পুলিশ সুপার সঞ্জিত কুমার রায় জানান, মহাসড়কে নির্বিঘ্ন করতে টাঙ্গাইল অংশে হাইওয়ে পুলিশের পাশাপাশি র‌্যাব, ব্যাটালিয়ন আনসার ও ছয় শতাধিক পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

টাঙ্গাইলের জেলা প্রশাসক ডক্টর মো. আতাউল গনি জানান, বঙ্গবন্ধু সেতুর টোল আদায় নিরবচ্ছিন্ন ও দ্রুত করার বিষয়ে কর্তৃপক্ষের সাথে কথা হয়েছে। তাদের সাথে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রাখা হচ্ছে।

By নিজস্ব প্রতিবেদক

রংপুরের অল্প সময়ে গড়ে ওঠা পপুলার অনলাইন পর্টাল রংপুর ডেইলী যেখানে আমরা আমাদের জীবনের সাথে বাস্তবঘনিষ্ট আপডেট সংবাদ সর্বদা পাবলিশ করি। সর্বদা আপডেট পেতে আমাদের পর্টালটি নিয়মিত ভিজিট করুন।

Related Post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *