প্রকাশ্যে তরুণীর জামা টেনে ছিঁড়ল দুর্বৃত্ত – রংপুর ডেইলী
প্রকাশ্যে তরুণীর জামা টেনে ছিঁড়ল দুর্বৃত্ত

প্রকাশ্যে তরুণীর জামা টেনে ছিঁড়ল দুর্বৃত্ত

আবার লাঞ্ছনার শিকার নারী। এবার রাজধানীতেই এক মোটরসাইকেল আরোহীর বিরুদ্ধে এক নারীর জামা টেনে ছিঁড়ে, গালাগাল করতে করতে চলে যাওয়ার অভিযোগ। পুলিশের দাবি, অভিযুক্তকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। গত বুধবার রাতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এফ রহমান হলের সামনে এই ঘটনা ঘটে।

পেছন থেকে মোটরসাইকেলে আসা এক লোক হঠাৎ খামচে ধরে তরুণীর জামা ছিঁড়ে ফেলে। এরপর গালাগাল করতে করতে চলে যায়। কিন্তু খোদ রাজপথে, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় এমন নিপীড়নের শিকার ওই তরুণীর চিৎকার শুনে এগিয়ে আসেনি কেউ।

ভুক্তভোগী তরুণী রিকশায় বাসায় ফেরার পথে এমন আক্রমণের শিকার হওয়ার কথা ফেসবুকে লিখেছেন। সেখানে তরুণীর প্রশ্ন, স্বাভাবিক নিরাপত্তা নিয়ে এদেশে বাঁচবেন কীভাবে?

বাসায় ফেরার পথে এমন লাঞ্ছনার শিকার হওয়ার পর ওই তরুণী এক ফেসবুক পোস্টে লেখেন, ’এই যে আমার ছেড়া জামাটা দেখতেছেন, এটাই আপনাদের বাংলাদেশ!! এই দেশে মেয়েদের মলেস্ট হওয়া, হ্যারাস হওয়া, রেপ হওয়া, গালি খাওয়া স্বাভাবিক ভেবে মেনে থাকতে পারলে থাকেন, নাইলে এই রাগে দুঃখে ট্রমাটাইজ হয়ে সুইসাইড করেন, মরে যান, যা খুশি করেন কিন্তু প্রতিরোধ কিংবা বিচারের আশা কইরেন না!!’

ঘটনার বর্ননা দিয়ে ওই ফেসবুক পোস্টে তিনি আরও বলেন, ’একটা লোক বাইক নিয়ে রিকশার পেছন থেকে এসে আমার বুক খামচে টেনে হিচড়ে জামা ছিড়ে আমাকেই গালাগাল করতে করতে চলে গেলো, আশেপাশে একটা পুলিশ নাই, একটা মানুষ এসে ধরলোনা আমার চিৎকার শুনে!! আমি কিচ্ছু করতে পারলাম না!! আমার শরীর এখনো কাঁপতেছে ভয়ে!!’

তিনি লেখেন, ’গত কয়েকমাস যাবত আমি ভয়ংকরভাবে মেন্টালি আন্সটেবল। আজকেও আমার মনের অবস্থা ঠিক ছিলোনা। কানে হেডফোন দিয়ে গান শুনতে শুনতে বাসায় ফিরতেছিলাম। আমার এই ড্রেসে ঠিক কি খারাপ ছিলো যার কারনে এমন ঘটনা ঘটলো?!’

’পোশাকের দোষ দেওয়া মানুষগুলো সালোয়ার কামিজে একটা মেয়েকে কি নিয়ে দোষ দিবে? আমার সাথে এমনটা কেন হলো? কখনো ভাবিনাই আমার ঢাকাশহরে আমার সাথেই এমন কিছু হতে পারে!!’

তিনি প্রশ্ন রাখেন, ’এই দেশে থাকতে চাইলে বিনিময়ে রাস্তাঘাটে গায়ে হাত দেয়ার পারমিশন দিতে হবে? নাকি এখন সন্ধ্যার পর বাসার বাইরে বের হওয়া বন্ধ করে দিবো??! আর কারে গিয়ে বললে একটু স্বাভাবিক সিকিউরভাবে এদেশে বাঁচতে পারবো?’

এর আগে গত ১৮ মে নরসিংদী রেলস্টেশনে ‘অশালীন পোশাক পরার অপবাদ’ দিয়ে এক তরুণীকে হেনস্থা করা হয়, পরদিন যার ভিডিও ছড়ায় নেট দুনিয়ায়৷ ওই ঘটনা আলোচনায় আসার পর এক নারীসহ দুজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে৷

নরসিংদীর ওই ঘটনার প্রসঙ্গ টেনে হেনস্থা হওয়া তরুণী লিখেছেন, ‘…কানে হেডফোন দিয়ে গান শুনতে শুনতে বাসায় ফিরতেছিলাম৷ আমার এই ড্রেসে ঠিক কী খারাপ ছিল যার কারণে এমন ঘটনা ঘটলো? পোশাকের দোষ দেওয়া মানুষগেুলো সালোয়ার কামিজে একটা মেয়েকে কী নিয়ে দোষ দিবে?’

ঘটনার পর বৃহস্পতিবার শাহবাগ থানায় একটি মামলা করেন ওই ভুক্তভোগী। পুলিশকে জানান, দেখলে ওই নিপীড়ককে চিনতে পারবেন তিনি। ওই তরুণী একটি বেসরকারি রেডিও স্টেশনে কর্মরত বলে পুলিশকে জানিয়েছেন।

এ ব্যাপারে শাহবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মওদুত হাওলাদার গণমাধ্যমকে জানান, পুলিশ ইতোমধ্যে ঘটনাস্থল থেকে সিসিটিভি ফুটেজ সংগ্রহ করেছে। তিনি বলেন, ’ঘটনাটি জানার পর ঘটনাস্থলে কয়েকজন পুলিশ সদস্য গিয়েছেন। তাদের সঙ্গে ভুক্তভোগী তরুণীও ছিলেন। ঘটনাটি তদন্তে আমরা কাজ করছি। অভিযুক্ত ব্যক্তিকে আমরা খুঁজছি।’

রংপুর ডেইলী রংপুরের সবচেয়ে আপডেট সংবাদ দেশ ও আন্তজার্তিক নিউজ প্রকাশে বাধ্য থাকিবে। রংপুরের সব রকমের নিউজ পেতে রংপুর ডেইলী ভিজিট করুন