পরী মনিকে ধর্ষণচেষ্টা: কারাগার থেকে মুক্তি পেলেন নাসির

মাদক মামলায় নাসির-আমিকে ৭ দিনের রিমান্ডমাদক মামলায় নাসির-আমিকে ৭ দিনের রিমান্ড

চিত্রনায়িকা পরীমনিকে ধর্ষণচেষ্টা ও হত্যাচেষ্টা এবং পুলিশের করা মাদকের মামলায় জামিনে মুক্তি পাওয়া ব্যবসায়ী নাসির ইউ মাহমুদ বলেন, বড় রকমের ভিকটিম হলাম। কোনো দিন হাজত দেখিনি। রিমান্ডে ১২ দিনসহ ১৮ দিন জেল-হাজতে কাটিয়েছি। সত্যিকারে অন্যায় করলে আফসোস ছিল না। আশা করি তদন্তকারী সংস্থা সঠিক বিষয়টি তুলে আনবে।

ঢাকার কেরানীগঞ্জের কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় তিনি মুক্তি পান। শনিবার (৩ জুলাই) বিকেলে নাসির কয়েকজন সাংবাদিকের সঙ্গে মুঠোফোনে কথা বলেন।

জাতীয় পার্টির এই প্রেসিডিয়াম সদস্য অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, আমি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি হলের নির্বাচিত জিএস ছিলাম। ঢাকার প্রথম বিভাগের ফুটবলার ছিলাম। উত্তরা ক্লাবের তিনবার সভাপতি ছিলাম। একজন ব্যবসায়ী। আমাকে আটক করার পরও কেউ আমার বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ করেননি। একজন সেলিব্রিটির অভিনয়ে আমি সামাজিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে গেলাম।

বিমানবন্দর থানায় পুলিশের করা মাদকের মামলা থেকে নাসির ইউ মাহমুদ গত বুধবার জামিন পান। আগের দিন একই আদালত পরীমনির করা ধর্ষণ ও হত্যাচেষ্টা মামলায় তাঁর জামিন মঞ্জুর করেন।

By নিজস্ব প্রতিবেদক

রংপুরের অল্প সময়ে গড়ে ওঠা পপুলার অনলাইন পর্টাল রংপুর ডেইলী যেখানে আমরা আমাদের জীবনের সাথে বাস্তবঘনিষ্ট আপডেট সংবাদ সর্বদা পাবলিশ করি। সর্বদা আপডেট পেতে আমাদের পর্টালটি নিয়মিত ভিজিট করুন।

Related Post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *