দলের কেউ অপকর্মে লিপ্ত হলেই ব্যবস্থা

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, “দলের মধ্যে ভুল বোঝাবুঝি ও ঝগড়া পরিস্থিতি আরও জটিল করবে।”

যারা এ জাতীয় কর্মকাণ্ড ও অপকর্মে জড়িত তাদের বরদাশত করা হবে না। তাদের বিরুদ্ধে প্রশাসনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে। সাংগঠনিক ব্যবস্থাও নেওয়া হবে।

শুক্রবার (১৬ এপ্রিল) রাজধানীর ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ উপ-কমিটি আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে তিনি বিভিন্ন সাংবাদিক সংগঠন ও ধর্মীয় সংগঠনের মধ্যে করোনার সুরক্ষা উপকরণ বিতরণ অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখছিলেন। ওবায়দুল কাদের ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে অনুষ্ঠানে যোগ দেন।

দলীয় নেতাদের উদ্দেশে কাদের বলেন, যাদের নিজস্ব বাড়িতে শত্রু রয়েছে তাদের বাহ্যিক শত্রুদের দরকার নেই। আমাদের অবশ্যই ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। আমাদের ঘরে ঘরে সাম্প্রদায়িক কুফলের বিরুদ্ধে পাশাপাশি ভয়াবহ করোনার বিরুদ্ধে সচেতনতার একটি শক্ত ঘাঁটি তৈরি করতে হবে।

এ সময় আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য বেগম মতিয়া চৌধুরী, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, সাংগঠনিক সম্পাদক শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল, স্বাস্থ্য সম্পাদক ডাঃ রোকেয়া সুলতানা, উপ-দফতর সম্পাদক সায়েম খান, শিক্ষা ও মানবসম্পদ বিষয়ক সম্পাদক সম্মুন্নাহার চম্পা এবং বাংলাদেশ ফেডারেল ইউনিয়নের সাংবাদিকরা ছিলেন। উপস্থিত ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব আবদুল মজিদ এবং অন্যান্য সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ

Leave a Comment