চুল রঙ করার প্রাকৃতিক উপায়

চুলের রং ধরে রাখতে

বর্তমান সময়ের অন্যতম একটি ফ্যাশন হচ্ছে— চুলে কালার করা বা রঙ করা। অনেকেই বিভিন্ন পণ্য ব্যবহার করে চুলে রঙ করে থাকেন।

এ ধরনের চুল রঙ করার পণ্যে বিভিন্ন ধরনের কেমিক্যাল ব্যবহার করা হয়ে থাকে। আর এগুলো অনেক সময় চুল ও মাথার ত্বকে অনেক ক্ষতিকারক প্রভাবও ফেলে থাকে।

আবার বিভিন্ন সময়ে ভিন্ন ভিন্ন পণ্য ব্যবহার করার ফলে চুল পড়ে যেতেও দেখা যায় অনেকের। তাই বর্তমান সময়ের ফ্যাশনের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলতে চাইলেও এর ক্ষতিকারক প্রভাবের কারণে অনেকে চুলে রঙ করতে ভয় পেয়ে থাকেন।

তবে জেনে অবাক হবেন যে, কয়েকটি সাধারণ উপাদানের সাহায্যে ঘরে বসেই প্রাকৃতিক উপায়ে রঙ করতে পারেন আপনার চুল।
চলুন জেনে নেওয়া যাক কীভাবে করবেন—

১. গাজরের রস
আমাদের সবার কাছেই অনেক পরিচিত একটি সবজি হচ্ছে গাজর। কিন্তু এ সবজিটি দিয়েই আপনি চুলের রঙ করতে পারবেন। চুলে প্রাকৃতিকভাবে লালচে কমলা রঙ আনতে ব্যবহার করতে পারেন এ উপাদানটি।

এর জন্য গাজরের রসের সঙ্গে নারিকেল তেল ভালো করে মিশিয়ে নিন। এর পর মিশ্রণটি চুলে প্রয়োগ করে শাওয়ার ক্যাপ দিয়ে এক ঘণ্টা ঢেকে রাখুন। শেষে আপেল সিডার ভিনেগার দিয়ে ধুয়ে ফেললেই মিলবে চুলের প্রাকৃতিক রঙ।

২. বিটের রস
প্রাকৃতিকভাবে চুল রঙ করতে বিটের রস অনেক কার্যকরী। এটি আপনার চুল লাল রঙ প্রদান করতে পারে।

এর জন্য এক কাপ পরিমাণ বিটরুট রসের সঙ্গে এক কাপ গাজরের রস মিশিয়ে নিন। এর পর একটি স্প্রে বোতলে নিয়ে মিশ্রণটি চুলে স্প্রে করে শাওয়ার ক্যাপ দিয়ে ৩ ঘণ্টা ঢেকে রাখুন। পরে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেললেই মিলবে চুলের রঙ।

৩. মেহেদি
চুলের প্রাকৃতিক রঙ আনতে সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত হয় মেহেদি। একই সঙ্গে এটি অনেক জনপ্রিয় একটি পদ্ধতি।

চুলের প্রাকৃতিক রঙ পেতে চাইলে মেহেদি পাতা ভালো করে পিষে নিয়ে এর সঙ্গে চা অথবা কফির পানি মিশিয়ে চুলে ব্যবহার করুন। এতেই আপনার চুল হবে গাঢ় ও লালচে বর্ণের। আর এটি মাসে দুই থেকে তিনবার ব্যবহার করলে রঙ হবে আরও সুন্দর ও দীর্ঘস্থায়ী।

৪. লেবুর রস
চুলে প্রাকৃতিকভাবে সোনালি রঙের ছোঁয়া আনতে চাইলে ব্যবহার করতে পারেন লেবুর রস।

এর জন্য লেবুর রসে সামান্য পানি মিশিয়ে স্প্রে বোতলের সাহায্যে চুলে স্প্রে করে শাওয়ার ক্যাপ দিয়ে ১ ঘণ্টা ঢেকে রাখুন। পরে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেললেই পাবেন সুন্দর সোনালি আভা। আরও ভালো ফল পেতে এটি লাগিয়ে কিছুক্ষণ রোদে বসে থাকতে পারেন।

৫. কফি
কফির সাহায্যেও করে ফেলতে পারেন চুলের রঙ। এর জন্য ফুটন্ত পানিতে বেশি পরিমাণে কফি দিয়ে ভালো করে গুলিয়ে নিন। পরে স্প্রের সাহায্যে চুলের গোড়ায় স্প্রে করে নিয়ে ভালো করে ম্যাসাজ করে এক ঘণ্টা রেখে দিন। প্রায়ই এ রকম করলে পাবেন আপনার চুলের রঙের আরও ভালো শেড ও হালকা বাদামি রঙ।

৬. চা
চায়েও হবে আপনার চুলের অনেক ভালো রঙ। এর জন্য এক কাপ পানিতে পাঁচ টেবিল চামচ চা পাতা নিয়ে ভালো করে ফুটিয়ে নিন। পরে এটি ঠাণ্ডা হয়ে এলে চুলে লাগিয়ে ৩০ মিনিট রেখে দিন। এর পর কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেললেই মিলবে প্রাকৃতিক কালো রঙ।

By নিজস্ব প্রতিবেদক

রংপুরের অল্প সময়ে গড়ে ওঠা পপুলার অনলাইন পর্টাল রংপুর ডেইলী যেখানে আমরা আমাদের জীবনের সাথে বাস্তবঘনিষ্ট আপডেট সংবাদ সর্বদা পাবলিশ করি। সর্বদা আপডেট পেতে আমাদের পর্টালটি নিয়মিত ভিজিট করুন।

Related Post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *