কে তুমি

কে তুমি

কে তুমি, তুমি কি সেই যাকে আমি কল্পনাই আঁকি।
না তুমি মেঘের আড়ালে এক পোষলা বৃষ্টি।
তুমি কি সেই,যাকে আমি নীড়ের ভীয়ে হারিয়ে ফেলেছি।
না তুমি পাহাড়ি বনলতা সেন যার কোমলতা মুগ্ধ আমি।

কে তুমি, তুমি কি সেই যাকে আমি কল্পনাই আকিঁ।
না তুমি কুয়শায় সকালে আবছা আলো ভেসে আসা ঠান্ডা।
না তুমি ঘাসে উপরে শিশির বিন্দু, যা প্রাকৃতিক সুন্দর্যর রাজ কুমারি।
না তুমি ভোরে আকাশে কূলো কলকাকলিতে উড়ে আসা এক ঝাক পাখি।

কে তুমি, তুমি কি সেই যাকে আমি কল্পনাই আকিঁ।
না তুমি সবুজে ঘেরা বিশাল মাঠে সোনালি ধান শীষ।
যা ঢেউ খেলা ধানের শীষ যেন কৃষকের মুখে হাসি।
না তুমি পুকুর ঘাটে শিউলি ফুল।

কে তুমি, তুমি কি সেই যাকে আমি কল্পনাই আকিঁ।
না তুমি কল্পনার আকাঁ জল পরী যার মাঝে হারাতে নেই মানা
যা দীঘল কালো চুল হরিণী মতো চোখ মন মুগ্ধ কর চেহারা।
বলো না তুমি কি সেই, না শুধু আমার কল্পনা।

কে তুমি, তুমি কি সেই যাকে আমি কল্পনাই আকিঁ।
না তুমি গোধূলী বেলাই ভেসে আসা মেঘ।
না তুমি সন্ধ্যা রাতের অন্ধকারে জোনাকি পোকা।
না কি তুমি শুধুই আমার কল্পনা।।

Reporter: Farjana Akter

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *