করোনায় বাংলাদেশে ক্ষতিগ্রস্থ চার কোটিরও বেশি শিক্ষার্থী

করোনাভাইরাস মহামারির কারণে দীর্ঘসময় ধরে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় দেশে চার কোটির ও বেশি শিক্ষার্থী ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে বলে জানিয়েছে জাতিসংঘের শিশুবিষয়ক সংস্থা-ইউনিসেফ।তাদের ভাষ্য, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান যত বেশি সময় বন্ধ থাকবে, ঝরেপড়া শিক্ষার্থীর সংখ্যা ততই বাড়তে থাকবে। ফলে দ্রুত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার দাবি সংস্থাটি।

২৪ আগস্ট মঙ্গলবার ইউনিসেফের প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে এমন তথ্য তুলে ধরা হয়েছে;যেখানে বলা হয়েছে,করোনা মহামারির পুরোটা সময়ে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাযায় প্রাক-প্রাথমিক থেকে উচ্চতর শিক্ষার স্তর পর্যন্ত বাংলাদেশে চার কোটিরও বেশি শিক্ষার্থী ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।আরো যতদিন দেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ থাকবে এ সংখ্যা ততই বাড়তে থাকবে।দীর্ঘ সময় ধরে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এর বাইরে থাকলে বাড়বে শিশুর প্রতি সহিংসতা, শিশুশ্রম এবং বাল্যবিয়ের মত ঘটনা।এত লম্বা সময় ধরে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকার ফলে শিক্ষার্থীদের উপর নেতিবাচক প্রভাব পড়তে পারে বলে জানিয়েছেন মনোচিকিৎসকরা। এই সকল দিক বিবেচনা করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দ্রুত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার প্রয়োজনীয় উদ্যোগ নেয়ার কথা বলেছেন।

এদিকে বাংলাদেশে করোনা শনাক্ত হয় গত বছরের ৮ মার্চ। ভাইরাসের বিস্তার প্রতিরোধে গত বছরের ১৭ মার্চ থেকে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করে সরকার। পরে দফায় দফায় তা বাড়িয়ে আগামী ৩১ আগস্ট পর্যন্ত করা হয়েছে।

Leave a Comment