ঈদের দিন আবহাওয়া কেমন থাকবে, জানাল আবহাওয়া অধিদপ্তর

আজ শুক্রবার সন্ধ্যায় ঘোষণা করা হলো, শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা গেছে। কাল শনিবার পবিত্র ঈদুল ফিতর। এর আগে বিকেলেই স্বস্তির বৃষ্টি হয়েছে রাজধানীতে। বৃষ্টি ও কালবৈশাখী হয়েছে দেশের বিভিন্ন স্থানে। এতে তীব্র তাপপ্রবাহ কমে গেছে। আবহাওয়া অধিদপ্তর বলেছে, আজ থেকেই দেশের বিভিন্ন স্থানে তাপ কমতে শুরু করেছে। তাপ কমার এই প্রবণতা থাকবে অন্তত তিন দিন। আর কাল শনিবার ঈদের দিন দেশের বিভিন্ন স্থানে বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

রাজধানীতে সর্বশেষ বৃষ্টি হয়েছিল ২ এপ্রিল। আজ শুক্রবার ১৯ দিন পর রাজধানীবাসী দেখা পেলেন বৃষ্টির। এ বৃষ্টি বহু কাঙ্ক্ষিত। কারণ, এর মধ্যে প্রচণ্ড তাপে পুড়তে হয়েছে নগরবাসীকে। তাই বৃষ্টির জন্য চাতক পাখির মতো ছিলেন রাজধানীবাসী। আজ বিকেল সোয়া পাঁচটার দিকে বৃষ্টি শুরু হয় রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায়। এর সঙ্গে ছিল ঝোড়ো হাওয়া। রাজধানীর শ্যামলী, মোহাম্মদপুর, মহাখালী, ফার্মগেট, আগারগাঁও, কারওয়ান বাজারসহ বিভিন্ন এলাকায় বৃষ্টি হয়। তবে এর পরিমাণ ছিল সামান্য।

আজ শুধু রাজধানীতে নয়, দেশের বিভিন্ন স্থানে বৃষ্টি হয়েছে। আবার দেশে এক দিনের ব্যবধানে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ২ ডিগ্রি সেলসিয়াসের বেশি কমেছে। রাজধানী ঢাকার তাপমাত্রাও কমেছে এ সময়। এর পাশাপাশি দেশের বিভিন্ন স্থানে শুরু হয়েছে কালবৈশাখী ও বৃষ্টি। আবহাওয়া অধিদপ্তর বলছে, আজ শুক্রবার থেকে তাপমাত্রা কমতে শুরু করেছে, এটা অব্যাহত থাকবে। আগামী দুই দিন দেশের তাপমাত্রা ১ থেকে ৩ ডিগ্রি কমে যেতে পারে। সেই সঙ্গে দেশের বিভিন্ন স্থানে বাড়বে ঝড়বৃষ্টির প্রবণতা।

আজ শুক্রবার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে যশোরে—৪০ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। গতকাল বৃহস্পতিবার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল চুয়াডাঙ্গায়—৪২ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। অর্থাৎ এক দিনের ব্যবধানে তাপমাত্রা ২ ডিগ্রি সেলসিয়াসের বেশি কমে গেছে। তাপমাত্রা কমছে রাজধানীতেও। গতকাল রাজধানীর তাপমাত্রা ছিল ৩৭ দশমিক ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আজ তা কমে হয়েছে ৩৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের আবহাওয়াবিদ মো. হাফিজুর রহমান আজ বলেন, তাপমাত্রা কমছে। এ প্রবণতা আজ শুরু হয়েছে, এটি অন্তত তিন দিন থাকবে। মঙ্গলবার থেকে তাপমাত্রা আবার বাড়তে পারে।

এই বৃষ্টির কারণেই মূলত দেশে তীব্র তাপপ্রবাহ কমে গেছে। আবহাওয়া অধিদপ্তর আজ সন্ধ্যা ছয়টায় পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাস দিয়েছে। সেখানে বলা হয়েছে, ঢাকা, রাজশাহী ও খুলনা বিভাগের ওপর দিয়ে মৃদু থেকে মাঝারি তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। কিছু জায়গায় এই তাপপ্রবাহ কমে আসবে। আগের ২৪ ঘণ্টায় রাজশাহী, পাবনা, যশোর, চুয়াডাঙ্গা ও কুষ্টিয়া জেলার ওপর দিয়ে তীব্র তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছিল। আজ সেই তীব্র তাপপ্রবাহ নেই।

আগামী ২৪ ঘণ্টায় দেশের আট বিভাগে অস্থায়ীভাবে দমকা বা ঝোড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস। সেই সঙ্গে কোথাও কোথাও শিলাবৃষ্টি হতে পারে।

আবহাওয়াবিদ হাফিজুর রহমান বলেন, আট বিভাগের মধ্যে ঢাকা, সিলেট, চট্টগ্রাম ও বরিশালে অপেক্ষাকৃত বেশি বৃষ্টি হতে পারে। তবে রংপুর, খুলনা ও রাজশাহীতে বৃষ্টি অপেক্ষাকৃত কম হতে পারে।

সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় দেশের বিভিন্ন স্থানে বৃষ্টি হয়েছে। এর মধ্যে নেত্রকোনায় সর্বোচ্চ ৪৩ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়। আর কক্সবাজারে ১৫ মিলিমিটার এবং সিলেটে ১০ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

By নিজস্ব প্রতিবেদক

রংপুরের অল্প সময়ে গড়ে ওঠা পপুলার অনলাইন পর্টাল রংপুর ডেইলী যেখানে আমরা আমাদের জীবনের সাথে বাস্তবঘনিষ্ট আপডেট সংবাদ সর্বদা পাবলিশ করি। সর্বদা আপডেট পেতে আমাদের পর্টালটি নিয়মিত ভিজিট করুন।

Related Post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *