অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীর মরদেহ হাসপাতালে ফেলে স্বামী উধাও

অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীর মরদেহ হাসপাতালে ফেলে স্বামী উধাও

চট্টগ্রামের লোহাগাড়ায় ফারজানা ইয়াছমিন কলি (২০) নামে এক অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূর মরদেহ হাসপাতালে রেখে পালিয়ে গেছে স্বামী ও শ্বশুর বাড়ির লোকজন।

রোববার (১৮ জুলাই) রাতে শ্বশুর বাড়ির লোকজন ওই গৃহবধূর মরদেহ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে রেখে কৌশলে হাসপাতাল থেকে পালিয়ে গেলেও শ্বাশুড়ি স্থানীয়দের হাতে আটক হয়।

মৃত ফারজানা ইয়াছমিন কলি উপজেলার চরম্বা ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ডের আতিয়ার পাড়ার প্রবাসী আজিজ মাষ্টারের কন্যা। একই ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ডের মাইজবিলা পূর্বপাড়া এলাকার জিয়াউর রহমানের স্ত্রী।

নিহত কলির পরিবারের অভিযোগ, বিয়ের পর থেকেই শ্বশুরবাড়ির লোকজন তাদের মেয়েকে নির্যাতন করে আসছিল। স্বামী জিয়াউর রহমান ও শ্বাশুড়ি মিলে শ্বাসরুদ্ধ করে মেরে ফেলেছে বলে অভিযোগ করেন।

শ্বাশুড়ি রাজিয়া বেগম জানান, ঘটনার দিন তাদের পুত্রবধূকে টয়লেটে অজ্ঞান অবস্থায় দেখতে পেয়ে স্থানীয় লোকজনের সহযোগিতায় দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে আসি।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স কর্তব্যরত চিকিৎসক ডাক্তার শেখ মোহাম্মদ ফয়সাল জানান, হাসপাতালে নিয়ে আসার আগেই মেয়েটির মৃত্যু হয়েছে। তার গলায় আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে।

খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন সাতকানিয়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জাকারিয়া রহমান জিকু। তিনি জানান, নিহতের শরীরে আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। এই ঘটনায় প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

By নিজস্ব প্রতিবেদক

রংপুরের অল্প সময়ে গড়ে ওঠা পপুলার অনলাইন পর্টাল রংপুর ডেইলী যেখানে আমরা আমাদের জীবনের সাথে বাস্তবঘনিষ্ট আপডেট সংবাদ সর্বদা পাবলিশ করি। সর্বদা আপডেট পেতে আমাদের পর্টালটি নিয়মিত ভিজিট করুন।

Related Post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *