অন্তঃসত্ত্বাদের অগ্রাধিকার ভিত্তিতে টিকাদানের পদক্ষেপ জানতে চেয়েছে হাইকোর্ট

অন্তঃসত্ত্বা নারীদের অগ্রাধিকার ভিত্তিতে করোনা টিকা প্রদানের বিষয়ে কী পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে সরকারকে তা জানাতে বলেছে হাইকোর্ট।

বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিমের ভার্চ্যুয়াল হাইকোর্ট বেঞ্চ সোমবার এই আদেশ দেন।

রিটের পক্ষে আইনজীবী ব্যারিস্টার হুমায়ুন কবির পল্লব জানান, রিটটির শুনানি মুলতবি রেখে আদালত অ্যাটর্নি জেনারেলকে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালকের সঙ্গে যোগাযোগ করে অন্তঃসত্ত্বা নারীদের টিকা প্রদানে পদক্ষেপ আগামী ৭২ ঘণ্টার মধ্যে জানাতে বলেছেন।

আদালতে রিটের পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার হ‌ুমায়ুন কবির পল্লব। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিপুল বাগমার।

এর আগে ৩১ জুলাই সুপ্রিম কোর্টের চার আইনজীবী অন্তঃসত্ত্বা নারীদের অগ্রাধিকার ভিত্তিতে করোনার টিকা প্রদানের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট দায়ের করেন।

চার আইনজীবী হলেন- ব্যারিস্টার হুমায়ুন কবির পল্লব, ব্যারিস্টার মোহাম্মদ কাউছার, অ্যাডভোকেট রাশিদা চৌধুরী ও ব্যারিস্টার মোজাম্মেল হক।

রিটে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব, মন্ত্রিপরিষদ সচিব, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এবং আইইডিসিআরের পরিচালককে বিবাদী করা হয়।

এর আগে অন্তঃসত্ত্বা নারীদের অগ্রাধিকার ভিত্তিতে করোনার টিকা প্রদানের জন্য সংশ্লিষ্টদের আইনি নোটিশ দেওয়া হয়। মানবাধিকার সংগঠন ল’ অ্যান্ড লাইফ ফাউন্ডেশনের পক্ষে নোটিশটি পাঠানো হয়।

এতে বলা হয়, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী বাংলাদেশ প্রতিবছর প্রায় ৩৫ লাখ নারী অন্তঃসত্ত্বা হন। অর্থাৎ ৩৫ লাখ অন্তঃসত্ত্বা নারী আরও ৩৫ লাখ মানুষের অস্তিত্ব বহন করেন।

করোনা মহামারীতে আক্রান্ত হয়ে অন্তঃসত্ত্বা নারী এবং শিশুর মৃত্যু ঘটছে। সঠিকভাবে অন্তঃসত্ত্বা নারীদের করোনার টিকা ব্যবস্থা করা গেলে এ মৃত্যু কমিয়ে আনা সম্ভব।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার দেওয়া তথ্যে অন্তঃসত্ত্বাদের করোনা টিকা দেওয়া যাবে বলে বলা হয়। যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্রসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে অন্তঃসত্ত্বাদের ফাইজার এবং মডার্নার টিকা দেওয়ার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

By নিজস্ব প্রতিবেদক

রংপুরের অল্প সময়ে গড়ে ওঠা পপুলার অনলাইন পর্টাল রংপুর ডেইলী যেখানে আমরা আমাদের জীবনের সাথে বাস্তবঘনিষ্ট আপডেট সংবাদ সর্বদা পাবলিশ করি। সর্বদা আপডেট পেতে আমাদের পর্টালটি নিয়মিত ভিজিট করুন।

Related Post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *